ব্রেকিং নিউজ

x


বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা ও ছেলের মৃত্যু

শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০ | ৪:৩৫ অপরাহ্ণ

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা ও ছেলের মৃত্যু

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় ইটভাটার বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে মা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে।

গতকাল ৩ এপ্রিল শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার কামারপাড়া ইউনিয়নের নুরপুর দক্ষিণপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, ওই গ্রামের বাদল চন্দ্র সরকারের স্ত্রী সাধনা রানী (৫০) ও তার ছেলে কলেজছাত্র উৎপল চন্দ্র সরকার (১৮)।

নিহত উৎপল চন্দ্র সরকার সাদুল্লাপুর সরকারি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র। আজ শনিবার দুপুরে তাদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা জানান, নুরপুর গ্রামের ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম বাবলা তার বাড়ির পাশে এসএসবি ব্রিকস নামে একটি ইটভাটা স্থাপন করেন। ওই ইটভাটায় বাবলা তার বাড়িসংলগ্ন মাদরাসা থেকে জমির ওপর দিয়ে বাঁশের খুঁটির মাধ্যমে পল্লী বিদ্যুতের অস্থায়ী সংযোগ নেয়। সম্প্রতি বাঁশের খুঁটি ভেঙে ইটভাটার বৈদ্যুতিক সংযোগ তাড়টি ধানের জমিতে ঝুলে পড়ে।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে পার্শ্ববর্তী পুরাণ লক্ষীপুর গ্রামের মনি মিয়া ইটভাটার পাশের ধানের জমিতে কীটনাশক ছিটানোর জন্য উৎপল চন্দ্র সরকারকে ডেকে নিয়ে যান। কীটনাশক ছিটানোর ইটভাটার বিদ্যুতের তাড় উৎপল চন্দ্র সরকারের পায়ে জড়িয়ে যায়।

এতে সে চিৎকার করে জমিতে পড়ে যায়। বিষয়টি দেখে পাশের ধান ক্ষেতে কর্মরত লোকজন চিৎকার শুরু করে। চিৎকার শুনে উৎপলের মা সাধনা রানী বাড়ী থেকে দৌড়ে এসে কিছু বুঝে উঠার আগেই ছেলেকে জড়িয়ে ধরেন।

এতে মা ও ছেলে দুইজনেই বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ঘটনাস্থলেই মারা যান। নিহতদের পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শীরা অভিযোগ করে বলেন, ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম বাবলার ইটভাটার অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ ধানের জমিতে পড়ে না থাকলে মা ও ছেলেকে প্রাণ দিতে হতো না।

এ বিষয়ে কামারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান শামসুল আলম এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, একই সঙ্গে মা-ছেলের মৃত্যু খুবই দুঃখজনক। পরে পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগকে খবর দেওয়া হলে তারা বিদ্যুতের সংযোগ বন্ধ করে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই মা-ছেলের মরদেহ উদ্ধার করে সাদুল্লাপুর থানায় নিয়ে আসে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদ রানা জানান, এই নিয়ে থানায় শনিবার দুপুরে নিহত সাধনা রানীর বড় ছেলে সবুজ কুমার সরকার বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ৪:৩৫ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০

protidin-somoy.com |

Development by: webnewsdesign.com